৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট

৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট

৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট প্রশ্ন

৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট

আজকের এই পোস্টে আমরা তুলে ধরেছি ৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট প্রশ্নের সমাধান। আশাকরি এখান থেকে আপনারা অতি দ্রুত ৮ম শ্রেণীর কৃষি শিক্ষা এসাইনমেন্ট প্রশ্ন এবং উত্তর জানতে পারবেন।

১নং প্রশ্নের উত্তর:

পাট, গম, আখ, লাইব্রেরি মাল্টা ইত্যাদি উদ্বেগের বিষয়

কৃষ্ণচিন্তা কখনও অবদান রাখে না। শ্রুতি সময়কাল পর্যালোচনা করুন এবং বিশ্লেষণের মাধ্যমে এর প্রতিনিধি নতুন বিষয় সম্পর্কিত কৃষির সাথে যোগাযোগ করুন

কৃষ্ণ কোষকে বিজ্ঞ আদিম কৃষির ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইনস্টিটিউট থেকে শিক্ষার্থীরা কৃষির সর্বশেষ প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে।

২নং প্রশ্নের উত্তর:

আমাদের তরুণরা প্রথমে ইনস্টিটিউট পরীক্ষার মাধ্যমে নতুন ধারণা নিয়ে আসে। বিশেষ স্তরের কৃষিক্ষেত্রের জন্য প্রতিটি সেরা মানের যুবতী সংস্থার প্রতিষ্ঠানের একটি তালিকা রয়েছে।

 

বাংলাদেশ বোটানিক্যাল ইনস্টিটিউট এবং কিছু সময়ের জন্য প্রতিষ্ঠিত কৃষ্ণচন্দ্রকে অন্তর্ভুক্ত করে না

 

প্রায় সমস্ত প্রযুক্তির জলজ নেতাদের পাঠকদের সেবা করা উচিত।

৩নং প্রশ্নের উত্তর

ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিআরআরআই) দ্বারা উদ্ভাবিত ধানের জাতগুলি হ’ল-

 

ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট ‘কিরণ ও’ দিশারী বন্যার শেষে ধান চাষের জন্য দেরী হিসাবে; জাভ নামে দুটি চাল আবিষ্কার করেছে। সম্প্রতি, বন্যা ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চলের জন্য ব্রি ধান -১১ এবং ব্রি ধান -২২ নামে আরও দুটি জাতের ধানের বিকাশ করা হয়েছে। এই দুটি জাতের চাল 10-15 দিনের জন্য পানির নিচে বেঁচে থাকতে পারে। এই ধরনের কৃষকদের বন্যা একটি বড় সমস্যা। ধরা এবং লবণাক্ততা বড় সমস্যা।

 

এর জন্য বিজ্ঞানীরা ব্রি ধান-56,, ব্রি ধান-57 57 নামে খরা সহনশীল ধান আবিষ্কার করেছেন। উপকূলীয় অঞ্চলে লবণাক্ততার সমস্যা কাটিয়ে উঠতে ব্রি ধান -৪৪ এবং ব্রি ধান -৮৮ উদ্ভাবিত হয়েছে।

৪নং প্রশ্নের উত্তর

ধান ছাড়াও কৃষিবিদরা এমন জাত উদ্ভাবন করেছেন যা কৃষকরা বাংলাদেশের অর্থনীতির উন্নয়নে মাঠে চাষ করছেন:

 

ফুলের পরাগায়নের সময়, মূল উদ্ভিদের গুণাবলী যুক্ত করার সুযোগ রয়েছে, তবে অঙ্গ প্রজননে কোনও বিপদ নেই। ফসলের বীজ এবং নতুন জাতের বীজ সংরক্ষণ, রোগ সনাক্তকরণ। কৃষি বিজ্ঞানীরা ফসলের পুষ্টির মান বাড়ানোর জন্য এই সমস্ত কাজ করেন।

 

বিজ্ঞানীদের পরামর্শে কৃষকরা কলা, আম। লিচু কমলালেবু, গোলাপ ইত্যাদি উৎপাদনে অঙ্গ প্রজনন ব্যবহার করে কৃষি বিজ্ঞানীদের উদ্ভাবিত প্রযুক্তি কৃষকরা উচ্চ ফলনশীল ধান, গম হিসাবে গ্রহণ করেছেন। ভুট্টা এবং যবের উত্পাদনশীলতা বহুগুণ বেড়েছে। কৃষি বিশেষজ্ঞদের বিভিন্ন ধরণের ফুল রয়েছে। ফল. শাকসবজি এবং বৃদ্ধ মানুষ বিদেশ থেকে এনে এদেশের কৃষিতে যুক্ত করেছে!

 

এগুলির সাথে হাইব্রিডাইজেশন করে তিনি এমন নতুন জাত উদ্ভাবন করেছেন যা দেশীয় পরিবেশের প্রতি সহনশীল, যা এদেশের কৃষিকে এগিয়ে নিয়ে চলেছে। কৃষিপণ্য উৎপাদনে কৃষিবিদদের ভূমিকা অনেক এবং বেকার কর্মসংস্থান সৃষ্টিতেও সহায়তা করে।

৫মং প্রশ্নের উত্তরঃ

 

এই সময়ে কৃষি পণ্য উত্পাদন দ্বারা যে ধরণের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে তা হ’ল;

 

কৃষিকাজ মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে। সমস্যা সমাধানে বেকারত্ব বিশাল ভূমিকা পালন করে। প্রাচীন কাল থেকেই কৃষিকাজ মানুষের প্রধান পেশা। এটি এখনও বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষের প্রধান জীবিকা।

 

সুতরাং এটি একটি প্রাচীন পেশা হিসাবে বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। কৃষিকাজ মানুষের প্রাথমিক অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপ। অধ্যাপক জিমারম্যান (1951)। তাঁর মতে, কৃষি একটি বিশেষ ধরণের অর্থনৈতিক প্রচেষ্টা এবং একটি উত্পাদনশীল কাজ। তাই বলা যায় যে এই সমস্ত কৃষিপণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে কৃষিতে বেকার মানুষের জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হচ্ছে।

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close